২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
shadhin kanto

আওয়ামী লীগ কখনো একদলীয় শাসন কায়েম করেনি: কাদের

প্রতিনিধি :
স্বাধীন কণ্ঠ
আপডেট :
ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৩
18
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

ডেস্ক রিপোর্টঃ আওয়ামী লীগ কখনো একদলীয় শাসনব্যবস্থা কায়েম করেনি বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগ নামে যে দল গঠন করা হয়েছিল, তা একদল নয়, সেটা জাতীয় দল। সব দলের সমন্বয়ে সেটা ছিল জাতীয় দল।’

‘আওয়ামী লীগ একদলীয় শাসন কায়েম করে দেশের নির্বাচনব্যবস্থা ধ্বংস করেছে’ বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানে ভাষাশহীদদের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। এরপর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

আরও পড়ুন>>>মাটি বোঝাই করা ট্রাকচাপায় শিশু নিহত

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি আবারও বিএনপি নেতাদের স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, তাদের দলের (বিএনপি) প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান বাকশালের চেয়ারম্যান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে দরখাস্ত দিয়ে কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছিলেন। জিয়াউর রহমান দরখাস্ত দিয়ে যে দলে যোগ দিয়েছিলেন, সেই দলকে কটাক্ষ করার কোনো অধিকার বিএনপির নেতাদের নেই।’

বিএনপি জঙ্গিবাদের ঠিকানা মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আজকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও জঙ্গিরা আবারও মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে। তাদের পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে বিএনপি। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ও জঙ্গিবাদের ঠিকানা বিএনপি। তাদের নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি কাজ করছে। আবারও তারা আগুন সন্ত্রাসের চেষ্টা করছেন। এ অপশক্তি ও আগুন সন্ত্রাসীদের রুখতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তিকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

আরও পড়ুন>>>কৃষি জমির মাটি কাটায় দেড় লাখ টাকা জরিমানা

এদিকে, মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রভাতফেরিতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘যারা একুশের চেতনায় বিশ্বাস করে না, তারা একাত্তরের চেতনায়ও বিশ্বাস করে না। একাত্তরের চেতনা আর একুশের চেতনা একই। যারা এ চেতনাবিরোধী, তাদের বিশ্বস্ত ঠিকানা বিএনপি। এ অপশক্তি আগুন সন্ত্রাসীদের রুখতে হবে।’

বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে স্বীকৃতির দাবি জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকের এ দিনটি সারা দুনিয়ার ৩৫ কোটি বাংলা ভাষা-ভাষীর এক অহংকারের দিন। বিশেষ করে বাঙালি জাতির জন্য একুশে ফেব্রুয়ারি গর্বের দিন। আজকে আমাদের সবচেয়ে বড় অহংকার, পৃথিবীর সব দেশে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে। অর্থচ প্রায় ৩০ কোটি বাংলা ভাষা-ভাষী মানুষের মায়ের ভাষা, মাতৃভাষা, এ ভাষা জাতিসংঘের দাপ্তরিক স্বীকৃতি আজ পর্যন্ত পায়নি। আমরা আবারও দাবি জানাবো, জাতিসংঘের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পাবে, এটাই আমরা আশা করছি।

আরও পড়ুন>>>যশোর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানাতে সাধারণ মানুষের ঢল

এসময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন ও সুজিত রায় নন্দী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সৈয়দ আব্দুল আউয়াল শামীম, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য সাহাবুদ্দিন ফরাজি, তারানা হালিম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

গরম খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram