২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
shadhin kanto

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা ‘ন ডরাই’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’ 

প্রতিনিধি :
স্বাধীন কণ্ঠ
আপডেট :
ডিসেম্বর ৪, ২০২০
27
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা ‘ন ডরাই’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’ 
| ছবি : জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা ‘ন ডরাই’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’ 

ডেস্ক রির্পোট: সাগর পাড়ের এক অকুতোভয় কিশোরীর সার্ফার হয়ে ওঠার গল্প ‘ন ডরাই’, আর ভাষা আন্দোলনের ইতিহাসনির্ভর সিনেমা ‘ফাগুন হাওয়ায়’ যৌথভাবে ২০১৯ সালের সেরা চলচ্চিত্রের জাতীয় পুরস্কার জিতে নিয়েছে।

তথ্যমন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার এক প্রজ্ঞাপনে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ২০১৯ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা করে।

‘ন ডরাই’ সিনেমায় অনবদ্য অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন সুনেরাহ বিনতে কামাল। নিজের প্রথম সিনেমাতেই তিনি বাজিমাত করে দিয়েছেন।

আর আবার বসন্ত সিনেমায় একাকীত্বে ভোগা ষাটোর্ধ্ব ব্যবসায়ীর ভূমিকায় অভিনয় করে তারিক আনাম খান জিতে নিয়েছেন সেরা অভিনেতার পুরস্কার। আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা ও কোহিনুর আক্তার সুচন্দা।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা ‘ন ডরাই’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’ এবার ২৬টি বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ১০টি পুরস্কার উঠেছে মাসুদ পথিক (মাসুদ রানা) পরিচালিত ‘মায়া দ্য লস্ট মাদার’ চলচ্চিত্রের ঝুলিতে।

ছবির অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলীদের মধ্যে পুরস্কারের তালিকায় রয়েছেন- শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব চরিত্র নারগিস আক্তার, শ্রেষ্ঠ সঙ্গীত পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী ইমন, যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ গায়িকা মমতাজ ও ঐশী, শ্রেষ্ঠ গীতিকার কামাল চৌধুরী (যুগ্মভাবে), যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ সুরকার প্লাবন কোরেশী ও তানভীর তারেক, শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার মাসুদ পথিক, শ্রেষ্ঠ সম্পাদক জুনায়েদ আহমেদ হালিম ও শ্রেষ্ঠ মেকআপম্যান মো. রাজু।
ইমপ্রেস টেলিফিল্মের প্রযোজিত ও তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘ফাগুন হাওয়ায়’র সঙ্গে যুগ্মভাবে সেরা চলচ্চিত্রের পুরস্কার পাওয়া ‘ন ডরাই’ চলচ্চিত্র এবার পেয়েছে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬টি পুরস্কার।

এর মধ্যে প্রধান অভিনেত্রী হিসেবে সুনেরাহ ছাড়াও পুরস্কারের তালিকায় রয়েছেন- শ্রেষ্ঠ পরিচালক তানিম রহমান অংশু, শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্যকার মাহবুব উর রহমান, শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক সুমন কুমার সরকার ও শ্রেষ্ঠ শব্দগ্রাহক রিপন নাথ।

‘ফাগুন হাওয়ায়’ পেয়েছে ৩টি পুরস্কার; যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার ছাড়াও পার্শ্ব চরিত্রের শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে ফজলুর রহমান বাবু, শ্রেষ্ঠ পোশাক ও সাজসজ্জায় খন্দকার সাজিয়া আফরিন পুরস্কার পেয়েছেন।

‘সাপলুডু’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতা খল চরিত্রে পুরস্কার পেয়েছেন জাহিদ হাসান। যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী হয়েছেন ‘কালো মেঘের ভেলা’ ছবির জন্য নাইমুর রহমান আপন’ ও ‘যদি একদিন’ ছবির জন্য আফরীন আক্তার।

‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ নৃত্য পরিচালক পুরস্কার পাচ্ছেন হাবিবুর রহমান।
‘শাটল ট্রেন’ চলচ্চিত্রের ‘তুমি চাইয়া দেখো’ গানের জন্য শ্রেষ্ঠ গায়কের পুরস্কার উঠেছে তরুণ গায়ক মৃনাল কান্তি দাসের ঝুলিতে।

কামাল চৌধুরীর সঙ্গে যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার পেয়েছেন কবি নির্মলেন্দু গুণ। তার মেয়ে মৃত্তিকা গুণের পরিচালনায় ‘কালো মেঘের ভেলা’ চলচ্চিত্রে ‘ইস্টিশনে জন্ম আমার’ শিরোনামে একটি গান লিখেছেন নির্মলেন্দু গুণ।

শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতার পুরস্কার পেয়েছেন ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবির সংলাপ রচয়িতা জাকির হোসেন রাজু।

যুগ্মভাবে ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ শিল্প নির্দেশকের পুরস্কার পেয়েছেন মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ বাসু ও  ফরিদ আহমেদ।

শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্যচিত্র হিসেবে বাংলাদেশে টেলিভিশনের ‘যা ছিলো অন্ধকারে’ ও শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য হিসেবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের ‘নারী জীবন’ পুরস্কার পেয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

গরম খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram