৫ই মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
shadhin kanto

ড্রেনে মিললো বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ 

প্রতিনিধি :
স্বাধীন কণ্ঠ
আপডেট :
নভেম্বর ১৭, ২০২২
16
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 
রিপন বিশ্বাস, নড়াইলঃ নড়াইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি শেখ আবু তালেবের ( ৭৫ ) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে ।
 বুধবার (১৬ নভেম্বর ) দিবাগত রাত সাড়ে ১১ টায় জেলার কালিয়া উপজেলার গন্ধবাড়িয়া গ্রামের অব্দার ( বেড়িবাঁধ ) ড্রেন থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে ।
মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবু তালেব উপজেলার নড়াগাতি থানাধীন মাউলি ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের মৃত মোজাম শেখের ছেলে ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, , নিহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তালেব প্রতিদিনের ন্যায় সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বের হন । দীর্ঘ সময় বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা খোঁজাখুঁজি করেন এবং মসজিদের মাইকে তার নিখোঁজের বিষয়টি ঘোষণা দেন । খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে তার বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দূরে গন্ধবাড়িয়া গ্রামের সড়কের পাশে অব্দার ড্রেনে তার মরদেহ দেখতে পান ।
পরবর্তীতে নড়াগাতি থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ।
মাউলি ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড সদস্য আশরাফুল আলম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তালেব অন্য প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন তবিবুর রহমান মন্ডল। ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের নির্বাচনে আবু তালেবের প্যানেল জয় লাভ করে। এ নিয়ে নির্বাচনের দিন একটু বিশৃঙ্খলা হয়। আজ বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) মাদরাসার পূর্নাঙ্গ ম্যানেজিং কমিটির গঠন করার শেষ দিন।
আবু তালেব পূর্বে মাদরাসার এডহক কমিটির সভাপতি ছিলেন। নির্বাচনে তার প্যানেল জয়লাভ করায় তিনিই আবার সভাপতি হতেন। তিনি আবারও যাতে সভাপতি হতে না পারেন প্রতিপক্ষ প্যানেলের লোকজন শত্রুতার কারণে তাকে হত্যা করে থাকতে পারে।
মাউলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রোজি হক বলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু তালেবের কোনো শত্রুতা পূর্বে ছিল না। তিনি একজন ভালো মানুষ ইউনিয়নের সকল মানুষ জানে। মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনকে ঘিরে বেশ কয়েকদিন ধরে দুই প্যানেলের মধ্যে দ্বন্দ্ব বিরাজ করছিল। এর মধ্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবু তালেবের এমন মৃত্যু সত্যিই দুঃখজনক।
নড়াগাতি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকান্ত সাহা বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে রাত ১১ টার সময় পুলিশ বীর মুক্তিযোদ্ধার মরাদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরাদেহ নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে হত্যা নাকি স্বাভাবিক মৃত্যু কিছুই বলা যাচ্ছে না। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ বলতে পারবো।
জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। বিশৃঙ্খলা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

গরম খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram