১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
shadhin kanto

দুদকের গণশুনানিতে ২৫ প্রতিষ্ঠানের নামে ১৪৫ অভিযোগ

প্রতিনিধি :
স্বাধীন কণ্ঠ
আপডেট :
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৩
99
বার খবরটি পড়া হয়েছে
শেয়ার :
| ছবি : 

ডেস্ক রিপোর্টঃ ফরিদপুর সদর ভূমি কার্যালয় নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) গণশুনানিতে ছিল অভিযোগের পাহাড়।

ফরিদপুর ভূমি কার্যালয়, মৎস্যবিভাগ, বিআরটিএ, পাসপোর্ট অফিস, শিক্ষা অফিস, সমাজসেবা অফিস, সাব-রেজিস্টার অফিস, রাজেন্দ্র কলেজসহ ২৫ প্রতিষ্ঠানের নামে ১৪৫টি অভিযোগ উঠেছে সেখানে। এর মধ্যে কিছু সুনির্দিষ্ট, আবার কিছু ছিল ঢালাও অভিযোগ।

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ফরিদপুর শহরের কবি জসীমউদ্দিন হলে চলে দুদকের ওই গণশুনানি।

আরও পড়ুস>>>সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি কবির গ্রেফতার

সেখানে সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও সেবামূলক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে হয়রানি, দুর্নীতি, অনিয়ম, ঘুষ নেওয়াসহ নানা অভিযোগ তোলেন এসব সেবাগ্রহীতা।

সবচেয়ে বেশি অভিযোগ ওঠে ফরিদপুর ভূমি কার্যালয়ের বিরুদ্ধে।

স্থানীয় বাসিন্দা আশরাফ মৃধা, রাকিব হোসেন ও চামেলী বেগম বলেন, ফরিদপুর ভূমি কার্যালয়ে ভূমির নামজারি করতে হলে ৫ থেকে ১০ হাজার টাকা দাবি করা হয়। টাকা না দিলে কর্মকর্তারা নানাভাবে হয়রানি করেন। যারা চাহিদা মতো টাকা দেন তাদের নামজারি সময়মতো হয়ে যায়। আর যারা টাকা দেন না তাদের হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।

১৪৫টি অভিযোগের মধ্যে শুনানি হয়েছে ৭৬টির। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি অভিযোগ অনুসন্ধান করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বাকি অভিযোগ তাৎক্ষণিক সমাধান করা হয়। অভিযোগগুলো প্রাথমিক যাচাই–বাছাই শেষে দুর্নীতি দমন কমিশনে পাঠানোর জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

গণশুনানিতে দুদকের সচিব মাহবুব হোসেন বলেন, ‘গণশুনানিতে সেসব অভিযোগ উঠেছে, সেগুলো অনুসন্ধান করে দেখা হবে। গুরুতর অভিযাগগুলো আমলে নিয়ে দুদকের আইন ও নিয়মানুযায়ী পর্যবেক্ষণ ও অনুসন্ধান করা হবে এবং কমিশনের সিদ্ধান্তক্রমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

গণশুনানিতে অংশ নেন ফরিদপুর জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদার।

তিনি বলেন, অভিযোগ ওঠা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের কাছে জবাব চাওয়া হয়েছে। এ নিয়ে উপস্থাপন ও সমাধান এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদারের সভাপতিত্বে গণশুনানি অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- দুদকের মহাপরিচালক (প্রতিরোধ) মো. আক্তার হোসেন, ঢাকা বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ মোরশেদ আলম, ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান, পিপিএম-সেবা, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি প্রফেসর মো. শাহজাহান মিয়া, দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় ফরিদপুরের উপ-পরিচালক রেজাউল করিম, সব সরকারি দপ্তরের প্রধান, সাংবাদিক,জনপ্রতিনিধিসহ বিশিষ্ট নাগরিকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

গরম খবর
menu-circlecross-circle linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram